চাইলেই ইতালিতে গিয়ে ম্যাচ দেখতে পারবেন না ইংলিশ সমর্থকেরা

চাইলেই ইতালিতে গিয়ে ম্যাচ দেখতে পারবেন না ইংলিশ সমর্থকেরা

করোনা সংক্রমণের মাঝেই চলছে ইউরো কাপ। ইংল্যান্ডের কড়া করোনা বিধির কারণে ইউরোর সেমিফাইনাল, ফাইনালে অন্য দলের সমর্থকদের ম্যাচ দেখতে আসা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল। এমন অবস্থা হয়েছিল যে ম্যাচ ওয়েম্বলি থেকে সরানোর ভাবনাও শুরু করে দিয়েছিল উয়েফা। শেষ পর্যন্ত অনেক আলোচনার মাধ্যমে ব্যাপারটা মিটে যায়।

বিজ্ঞাপনকিন্তু এখন রোমে অনুষ্ঠিত কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচকে ঘিরে নতুন সমস্যা শুরু হয়েছে। যাতে চাপে পড়ে গিয়েছেন ইংল্যান্ড সমর্থকেরা।

রোমে শনিবার রাতে ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড-ইউক্রেন মুখোমুখি হবে। সেই ম্যাচ স্টেডিয়ামে বসে দেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন ইংল্যান্ডের সমর্থকেরা। কিন্তু আসলে করোনার সংক্রমণের কথা মাথায় রেখেই ইতালি সরকার কঠোর বিধিনিষেধ জারি করেছে। কারণ দেশটিতে নতুন করে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট সংক্রমণের খবর শোনা যাচ্ছে। যে কারণে বাড়তি সতর্কতা নিচ্ছে ইতালি। বিশেষ করে ইংল্যান্ড সমর্থকদের জন্য বিশেষ নিয়ম জারি করা হয়েছে।  

নিয়মানুযায়ী, রোমে বসে হ্যারি কেনদের ম্যাচ দেখতে হলে ইংল্যান্ড সমর্থকদের পাঁচ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এতে বিপাকে পড়েছে ইংল্যান্ড সমর্থকেরা। ইউক্রেন সমর্থকদের ক্ষেত্রে অবশ্য এরকম কোনো বাধা নেই। এই সমস্ত কারণে ইতালি ইতিমধ্যেই কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে। সে দেশের পুলিশও সর্বত্র নজরদারি চালিয়ে যাচ্ছে যাতে কেউ নতুন করে টিকিট বিক্রি করতে না পারে।  

কোয়ার্টার ফাইনাল দেখতে আসা ইংলিশ সমর্থকদের কাছে শুধু ম্যাচ দেখার টিকিট থাকলেই হবে না; তাদের টিকাকরণের প্রমাণপত্র, নেগেটিভ কোভিড রিপোর্ট এবং ৫ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার প্রমাণপত্রও দেখাতে হবে। ইতালির অ্যাম্বাসেডর রাফায়েল ত্রোমবেত্তা ব্রিটেন সরকারকে পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন, ‘ইংল্যান্ডের সমর্থকেরা যেন ইতালিতে না আসেন। কারণ কোয়ারান্টিনে থাকার সময় পার হয়ে গেছে। আর যদি কেউ ম্যাচ দেখার টিকিট কেটেও ফেলেন, তারা কিন্তু মাঠে ঢুকতে পারবেন না। ‘


Leave a Reply

Your email address will not be published.